ধুন্দলের রোগ-বালাই ও এর দমন ব্যবস্থা – পর্ব ১

ধুন্দল (Sponge gourd) বাংলাদেশের একটি জনপ্রিয় সবজি। এর বৈজ্ঞানিক নাম Luffa cylindrica এবং পরিবার Cucurbitaceae. সাধারণত দেশে দুই ধরণের ধুন্দল চাষহ করা হয়। একটি হল যেটিকে আমরা সবজি হিসেবে গ্রহণ করে থাকি। এর শাঁস সুস্বাদু এবং নরম। অন্যটি হলো বন্য ধুন্দল। এটিকে শুকিয়ে স্পঞ্জের মতো গায়ে সাবান মাখার খোসা তৈরি করা হয়।

রোগের নামঃ ধুন্দলের পাতার দাগ রোগ

বর্ণনা

এটি ছত্রাকজনিত রোগ। কচি পাতাকে আক্রান্ত করে এবং পাতা কিছুদিনের মধ্যেই পচে যায়। দ্রুত ব্যবস্থা না নিলে পুরো ফসলি মাঠে ছড়িয়ে পরতে পারে। এতে ফলন অনেক কমে যাবার সম্ভাবনা থাকে।

 রোগের লক্ষণ

●     আক্রান্ত পাতায় রিং এর মতো দাগের সৃষ্টি হয়।

●     পাতা কালো হয়ে পচে মরে যায়।

Ringworm of sponge gourd BD
ধুন্দলের পাতার দাদ রোগ

সংক্রমিত অংশ

গাছের পাতা।

 সমন্বিত ব্যবস্থাপনা

●    আক্রান্ত আংশ চিহ্নিত করে নষ্ট করে ফেলা।

●    রেডোমিল গোল্ড ২গ্রাম / প্রতি লিটার পানিতে মিশিয়ে স্প্রে কর।

●         আগাছা পরিষ্কার করা।

প্রতিরোধের ব্যবস্থা

  • আগাম বীজ বপন করা।
  • উন্নত জতের চাষ করা
  •  সুষম সার ব্যাবহার করা। 

রোগের নামঃ ধুন্দলের পাতা কোকড়ানো রোগ

বর্ণনা

সাদা মাছি পোকার আক্রমণে এ রোগ হয়ে থাকে। ভাইরাস পোকার মাধ্যমে বাহিত হয়ে পাতাকে আক্রান্ত করে।পাতা মরে যায় এবং সঠিক ব্যবস্থা না নিলে ফলন আশঙ্কা জনক ভাবে কমে যেতে পারে।

লক্ষণ

●    এটি একটি ভাইরাস জনিত রোগ।

●    সাদা মাছি দ্বারা ভাইরাস ছড়ায় ।

●    আক্রান্ত গাছ খর্বাকৃতি হয় ।

●    পাতার গায়ে টেউয়ের মত ভাজের সৃষ্টি হয়, কুঁচকে যায়।

●    বয়স্ক পাতা পুরু ও মচমচে হয়ে যায় ।

●    অতিরিক্ত শাখা প্রশাখা বের হয় ও ফুল ফল ধারণ ক্ষমতা হারিয়ে ফেলে।

Sponge Gourd Leaf twist
ধুন্দলের পাতা কোঁকড়ানো রোগ

সংক্রমিত অংশ

গাছের পাতা।

সমন্বিত ব্যবস্থাপনা

●    আক্রান্ত গাছ সংগ্রহ করে ধ্বংস করা ।

● ভাইরাসের বাহক পোকা দমনের জন্য ডায়ামেথেয়ট, এসাটাফ, এডমেয়ার, টিডো, ইত্যাদি যে কোন একটি ১মিলি/লিটার হারে পানিতে মিশিয়ে স্প্রে করা।

●    একই জমিতে বার বার  একই জাতীয় সবজি চাষ করবেন না।

●    প্রথম বার লক্ষণ দেখা যেতেই ব্যবস্থা নিন।

প্রতিরোধের ব্যবস্থা

  •   রোগমুক্ত গাছ থেকে বীজ সংগ্রহ করা ।
  •  রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সম্পন্ন জাত ব্যবহার করা ।
  •   সুষম সার ব্যবহার করা।

রোগের নামঃ ধুন্দলের ডাউনি মিলডিউ রোগ

বর্ণনাঃ

এটি ছত্রাক জনিত  রোগ। ছত্রাক বয়স্ক পাতায় আক্রমণ করে ফলে পাতা সাদা বা বাদামি হয়ে যায়। এটি  এক পাতা থেকে অন্য পাতায় দ্রুত ছড়িয়ে পরে।

লক্ষণঃ

●    বয়স্ক পাতায় এ রোগ প্রথম দেখা যায়।

●    আক্রান্ত পাতার গায়ে সাদা বা হলদে থেকে বাদামী রঙের তালির মত দাগ দেখা যায়।

●    ধীরে ধীরে অন্যান্য পাতায় ছড়িয়ে পড়ে।

Downy mildew of Sponge Gourd Leaf
ধুন্দলের ডাউনি মিলডিউ

সংক্রমিত অংশঃ

গাছের পাতা।

সমন্বিত ব্যবস্থাপনা

  • সম্ভব হলে গাছের আক্রান্ত অংশ সংগ্রহ করে ধ্বংস করা।
  • (ম্যানকোজেব+মেটালোক্সিল) গ্রুপের ছত্রাক নাশক যেমনঃ পুটামিল বা রিডোমিল গোল্ড অথবা
  • (ম্যানকোজেব+ ফেনামিডন) গ্রুপের ছত্রাক নাশক যেমনঃ সিকিউর ২ গ্রাম/লিটার অথবা
  • সালফার গ্রুপের ছত্রাক নাশক যেমন: কুমুলাস ২ কেজি/হেক্টর হারে বা গেইভেট বা মনোভিট বা ম্যাকভিট ২ মিলি. / লি হারে পানিতে মিশিয়ে স্প্রে করা ।
  • আক্রান্ত ক্ষেত থেকে বীজ সংগ্রহ করবেন না।

প্রতিরোধী ব্যবস্থা

●    আগাম বীজ বপন করা।

●    সুষম সার ব্যবহার করা।

● রোগ প্রতিরোধী জাত। যেমন: বারি উদ্ভাবিত/ অন্যান্য উন্নত জাতের সবজি চাষ করা।

●    বিকল্প পোষক যেমন: আগাছা পরিষ্কার রাখা।

Leave a Reply