১০টি বায়ু বিশুদ্ধকারী উদ্ভিদ রাখতে পারেন আপনার ঘরে

আপনার বাড়িতে বিষাক্ত গ্যাস কমানোর উপায়  খুঁজছেন এবং কিভাবে বিশুদ্ধ বাতাস পেতে পারেন তা নিয়ে ভাবছেন? স্বাস্থ্যকর এবং সুস্থ জীবনযাপনে আমাদের বিশুদ্ধ বাতাসের খুবই প্রয়োজন। State of Global Air রিপোর্ট অনুযায়ী দূষিত বায়ু আমাদের  গুরুতর স্বাস্থ্যঝুঁকির অন্যতম কারণ। এর ফলে  ২০১৬-১৭  সালে বিশ্বব্যাপী ৭  মিলিয়নেরও বেশি মানুষের মারা গিয়েছে। ঘরের বাইরের বায়ু দূষণের বিরুদ্ধে ব্যক্তিগতভাবে আমরা তেমন একটা উদ্যোগ নিতে না পারলেও, আমাদের বাসা- বাড়ি্র পরিবেশকে স্বাস্থ্যকর করে তোলার জন্য বিভিন্ন ধরনের বায়ু বিশুদ্ধকারী ঘরোয়া উদ্ভিদের পাশাপাশি আরও অনেক কিছু করা যেতে পারে। ঘরোয়া উদ্ভিদ বা ইনডোর প্ল্যান্টস কেবল বাতাসকে বিশুদ্ধই করে না, পাশাপাশি ঘরে একটি নান্দনিক সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি করে। নাসার ক্লিন এয়ার স্টাডি অনুসারে দেখা গেছে, কিছু সাধারণ ইনডোর প্ল্যান্ট আমাদের থাকার জায়গাগুলিতে সৃষ্ট কিছু বিষাক্ত গ্যাস যেমন – ফর্মালডিহাইড, বেনজিন বা অ্যামোনিয়া থেকে মুক্তি পেতে সহায়তা করতে পারে। আজকে আমি সেরকম ১০টি ইনডোর প্ল্যান্টস নিয়ে লিখব। বায়ু বিশুদ্ধকারী গাছগুলি ঘরের বিষাক্ত গ্যাস অপসারণ কোরে বাতাসের  গুণমান উন্নত করতে সহায়তা করবে।

অ্যালোভেরা

অ্যালোভেরা আমাদের সবার কাছেই কম বেশি পরিচিত। রোদে পোড়াভাব দূর করতে সহায়তা করার পাশাপাশি এটি একটি দুর্দান্ত বায়ু বিশুদ্ধকারী হিসেবেও অতুলনীয়। অ্যালোভেরা আপনার রান্নাঘরের পাশে ছোট বারান্দায় যেখানে রোদ আসে সেখানের জন্য একটি বাড়তি সংযোজন হতে পারে। কিচেনে রান্না করার কারনে উচ্চতাপমাত্রা থাকে।  এই তাপমাত্রা  কমানোর  জন্য অ্যালোভেরা ৯০% ফর্মালডিহাইড ও বেনজিন দূর করে বাতাসকে বিশুদ্ধ করে। এছাড়া বাতাসের বিষাক্ত ধূলিকণাগুলো নির্মূল করে বাতাসের গুনগত মান বজায় রাখে। 

যত্ন ও পরামর্শ

রোদযুক্ত স্থানে অ্যালোভেরা উদ্ভিদের জন্যে  সবচেয়ে উপযুক্ত স্থান হতে পারে। এই উদ্ভিদে ঘন ঘন পানি দেয়ার প্রয়োজন পড়েনা। অ্যালোভেরা ৫৫ থেকে ৪০  ডিগ্রি ফারেনহাইট (১৩ এবং ২৭ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড) তাপমাত্রায়ও ভাল থাকে। একটি প্লাস্টিক বা কাঁচের পাত্র ব্যবহার করতে পারেন এর যথাযথ আর্দ্রতা বজায় রাখতে। 

পিস লিলি

ঘরের অভ্যন্তরে যদি পর্যাপ্ত আলো বাতাস না আসে  তবে পিস লিলিকে বেছে নিতে পারেন। অভ্যন্তরীণ যে সকল  উদ্ভিদ  বায়ু পরিশোধিত করার বিষয়ে নাসার গবেষণা থেকে পাওয়া যায়, সেখানে দেখা যায়  পিস লিলি বেশ দক্ষতার সাথে বাতাসকে দূষিত করে এমন  বিপজ্জনক বিষাক্ত পদার্থ যেমন ফর্মালডিহাইড, বেনজিন, ট্রাইক্লোরিথিলিন ইত্যাদি নির্মূল করতে পারে। স্ট্যান্ডার্ড পিস লিলি ২৪-৪০  ইঞ্চি এবং ডিলাক্স গাছগুলি ৩২-২৫০  ইঞ্চি পর্যন্ত বাড়তে পারে।

যত্ন ও পরামর্শ

পিস লিলি হালকা আংশিক ছায়া পছন্দ করে এবং ফ্লুরোসেন্ট লাইটও সহ্য করতে পারে। বাসায়  উত্তর-বা পশ্চিমমুখী জানালা  থেকে পিস লিলির গাছকে  ছয় থেকে আট ফুট দূরে রাখতে পারেন। সাধারণভাবে, সপ্তাহে অন্তত একবার পানি মিশিয়ে মাটি আর্দ্র রাখুন। গ্রীষ্মের ক্রমবর্ধমান মরসুম জুড়ে, নরম বা পাতিত পানি দিয়ে  দিয়ে পাতায় স্প্রে করুন। শীতকালে উদ্ভিদে ঘন ঘন পানি দেওয়ার প্রয়োজন নেই।

স্পাইডার প্ল্যান্ট

বাসায়  একটি স্পাইডার প্ল্যান্ট ভেতরের পরিবেশকে আরও নিঃশ্বাসের উপযোগী করে তুলতে পারে। নাসার ক্লিন এয়ার স্টাডিতে দেখা গেছে যে স্পাইডার প্ল্যান্ট বাসার ভেতর এবং বাসার বাইরের বাতাসের বিষাক্ত ফর্মালডিহাইড এবং জাইলিন অপসারণে অসাধারণ ভুমিকা রাখে। এই উদ্ভিদটি  নিঃশব্দে কার্বন মনোক্সাইড এবং জাইলিন সহ টক্সিনের সাথে লড়াই করে। এছাড়া একই সমীক্ষায় দেখা গেছে যে, স্পাইডার প্ল্যান্ট ২৪ ঘন্টার মধ্যে আবদ্ধ কাঁচের চেম্বার থেকে ৯৫ শতাংশ ফর্মালডিহাইড সরিয়ে ফেলে। আপনার যদি পোষা প্রাণী থাকে তবে এটি এমন একটি ঘরোয়া উদ্ভিদ যা আপনার প্রাণীদের জন্য বিষাক্ত নয়। 

যত্ন ও পরামর্শ

স্পাইডার প্ল্যান্ট এর যত্ন  মোটামুটি সহজ।  অপ্রত্যক্ষ সূর্যের আলোতে ভাল বৃদ্ধি পেতে পারে। সুতরাং আপনি এটিকে আপনার বাড়ির যেকোন কোণে, বারান্দায় বা কর্মস্থলে রাখতে পারেন। মাটির আর্দ্রতা ধরে রাখার জন্য এই গাছটিকে সময়ে সময়ে পানি দিন।

রাবার প্ল্যান্ট

এটি একটি জনপ্রিয় হাউজপ্ল্যান্ট এর মোমের প্রলেপযুক্ত পাতার জন্যে। গৃহপালিত হাউজপ্ল্যান্ট হিসাবে, রাবার গাছ ছয় থেকে দশ ফুট লম্বা পর্যন্ত বৃদ্ধি পেতে পারে। রাবার প্ল্যান্ট তাদের অপ্রতিরোধ্য উচ্চতা এবং সুন্দর পাতার জন্য পরিচিত। এই গ্র্যান্ড প্ল্যান্টটি বিভিন্ন ধরণের এবং রঙের হয়ে থাকে যা যেকোনও হোম সজ্জার জন্যে দারুণ পরিপূরক হিসেবে কাজ করে।

যত্ন ও পরামর্শ

রাবার প্ল্যান্টস এর বিভিন্ন  ধরণের বৈচিত্র্যযুক্ত জাতের রঙ ধারণ ক্ষমতা বাড়াতে আরও বেশি আলো প্রয়োজন, তাই নিশ্চিত করুন যে তারা বিশেষত যথেষ্ট উজ্জ্বল আলোর নিচে আছে। রাবার গাছগুলি সাধারণত 60°F থেকে 75°F এর মধ্যে তাপমাত্রা পছন্দ করে। শীতকালে এরা ৫৯ ডিগ্রি ফারেনহাইটের কমেও বেঁচে থাকতে পারে।

উইপিং ফিগ

বাসার ভেতরের  বা কর্মক্ষেত্রের পরিবেশের নান্দনিকতার উন্নতি করার পাশাপাশি, ওয়েপিং ফিগার (ফিকাস ট্রি নামেও পরিচিত)। বাসার ভেতরের বাতাসের গুণমান হ্রাস করতে ভূমিকা রাখতে পারে। নাসা এর পরিচালিত ‘ক্লিন এয়ার স্টাডি’ অনুসারে, এই বাড়ির প্ল্যান্ট ইনডোর-এয়ার টক্সিন যেমন, ফর্মালডিহাইড এবং জাইলিন অপসারণে দক্ষতার সাথে সক্ষম। যদিও ফিকাস বেশ লম্বা হয়ে উঠতে পারে তবে আপনি বাড়ির ভিতরে রোপণের জন্য ছোট  জাতগুলি বেছে নিতে পারেন। ।

যত্ন ও পরামর্শ

অপ্রত্যক্ষ উজ্জ্বল সূর্যের আলো আছে  এমন  কোথাও রাখার চেষ্টা করুন এবং, ঘন ঘন পানি দিতে হবে। এই উদ্ভিদটি সহজেই রক্ষণাবেক্ষণ করা  যায়। বাসায়  ঘন ঘন বিভিন্ন স্থানে স্থানান্তর না করেই একই জায়গায় অবিচ্ছিন্নভাবে রাখলে এটি ভাল থাকে।

ডেভিলস আইভি

সাধারণত  দূষিত গ্যাস অপসারণের জন্য সবচেয়ে কার্যকর ঘরোয়া বায়ু বিশুদ্ধকারী এর মধ্যে একটি হিসাবে বিবেচনা করা হয় ডেভিলস আইভিকে। নাসার গবেষণা অনুযায়ী ডেভিলস আইভি বাতাস থেকে রাসায়নিক এবং অন্যান্য বিষাক্ত পদার্থ বিশেষ করে বেনজিন, ফর্মালডিহাইড, জাইলিন এবং টলুইন অপসারণের পারদর্শী। এটি অন্য উদ্ভিদের তুলনায় রাতের বেলায় প্রচুর  অক্সিজেন উৎপাদন করে থাকে। বেডরুমে রাখলে এই উদ্ভিদটি আপনাকে আরও ভালভাবে ঘুমাতে সহায়তা করতে পারে। যদি উজ্জ্বল, ফিল্টার করা আলোর সংস্পর্শে আসে তবে ডেভিলস আইভির পাতায় হলুদ বৈচিত্র‍্য বেশি দেখা যায়।

যত্ন ও পরামর্শ

ডেভিলস আইভি পরোক্ষ আলোতে বেশ ভাল থাকে। প্রতি সপ্তাহে একে পানি দেওয়া দরকার। একজন ব্যক্তির প্রয়োজন মেটাতে সাধারণত তিনটি ১৮ ইঞ্চি গাছ রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়। বসার ঘরে, ওয়ার্ক ষ্টেশন কিংবা  বা বারান্দায় এক কোনায় রাখতে পারেন।

স্নেক প্ল্যান্ট

বাড়ির বা কর্মক্ষেত্রের বাতাস পরিষ্কার করার জন্য স্নেক প্ল্যান্ট এর ভুমিকা অতুলনীয় । স্নেক প্ল্যান্ট মুলত রাত্রিকালীন সময়ে বেশি অক্সিজেন ছেড়ে থাকে। অন্যান্য অক্সিজেন নিঃসরণকারী উদ্ভিদের চেয়ে স্নেক প্ল্যান্ট রাতের বেলায় বেশি পরিমাণে কার্বন ডাই অক্সাইডকে অক্সিজেনে রূপান্তর করতে পারে। একজন পূর্ণ বয়স্ক ব্যক্তির জন্যে ৬-৮ টি স্নেক প্ল্যান্টই যথেষ্ট।

যত্ন ও পরামর্শ

আমাদের দেশের জল-হাওয়ায় দিব্যি বেঁচে থাকে এই গাছটি। খুব বেশি যত্ন-আত্তির দরকার হয় না। সহ্যশক্তি বেশি থাকায় এই গাছ সহজেই নানা রকম পরিবেশে মানিয়ে নিতে পারে। কড়া রোদ কিংবা ছায়াযুক্ত স্থান, পানিশূণ্য মরুভূমি; যেকোনো পরিবেশেই স্নেক প্ল্যান্ট বেড়ে উঠতে পারে। শুকনো মাটিতে এই গাছের ততোটা ক্ষতি হয়না, যতোটা অতিরিক্ত পানি দিলে হয়। স্নেকপ্ল্যান্ট গাছে সর্বদা পরিমিত পানি দিতে হবে এবং খেয়াল রাখতে হবে  গাছের গোড়ায় যেনো কোনোভাবেই পানি জমে না থাকে।

ইংলিশ আইভি

বায়ু বিশুদ্ধকারী হিসেবে ইংলিশ আইভির নাম বহুল প্রচলিত । বাসার যে কোন  বারান্দা বা কোণার জায়গাটি শোভিত করতে চান তবে ইংলিশ আইভি লাগান। নাসার ক্লিন এয়ার স্টাডি আবিষ্কার করেছে যে ইংলিশ আইভি জাইলিন, বেনজিন, টলুইন, ফর্মালডিহাইড ইত্যাদির মতো বিষাক্ত উপাদানগুলি থেকে ভেতরের বাতাসকে পরিশোধিত  করতে পারে। ইংলিশ আইভি আপনার ফুসফুস এর জন্য ভাল সহায়ক হিসেবে কাজ করে এবং কাশি বা ঠাণ্ডা কমাতে সহযোগিতা করে। এই ছাড়াও এই বহুবর্ষজীবি লতাটি বাতাসে বহনকারী ফ্যাকাল কণাগুলি হ্রাস করতে বিশেষভাবে কার্যকর যা এটি আপনার বাথরুমের জন্য নিখুঁত বায়ু বিশোধক। 

পরামর্শ

ইংলিশ আইভির যত্নের জন্য সাধারণত বাসার  উজ্জ্বল আলোযুক্ত স্থান বা দিনে চার ঘণ্টা সরাসরি সূর্যের আলোযুক্ত স্থান নির্বাচন করুন, বিনিময়ে এটি আপনাকে বিচ্ছিন্নভাবে ভালবাসা ফিরিয়ে দেবে বাতাস। তবে – সরাসরি সূর্যের আলো থেকে দূরে রাখুন। মাটি শুকিয়ে গেলে এই গাছটিকে পানি  দিতে ভুলবেন না।

ফ্লেমিংগো লিলি

নাসা ক্লিন এয়ার স্টাডি অনুযায়ী  ফ্ল্যামিংগো লিলি  বাড়ি বা অফিসে বায়ুবাহিত ফর্মালডিহাইড, অ্যামোনিয়া, টলুইন এবং জাইলিন অপসারণে অবিশ্বাস্যভাবে কার্যকর। ফ্ল্যামিংগো লিলিগুলি বাড়ি এবং অফিসের জন্য খুব উপকারি একটি প্ল্যান্টস। যে ঘরে এই উদ্ভিদটিকে রাখবেন সেই ঘরের বাতাস  পরিষ্কার করার ক্ষেত্রে এই উদ্ভিদটি দারুণ সাড়া দিবে। নাসা ক্লিন এয়ার স্টাডি অনুযায়ী ফ্লেমিংগো লিলিগুলি সাধারণত ফর্মালডিহাইড, অ্যামোনিয়া, টলুইন এবং জাইলিন সহ মার্কিন বাড়িতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিকারক রাসায়নিকগুলি ফিল্টার করে

পরামর্শ ও যত্ন 

ফ্লেমিংগো লিলি  উদ্ভিদটির যত্ন নেওয়া সহজ, খুব ভাল বাতাস  বিশোধক ফলাফলের জন্য প্রতি ১০০ বর্গফুট অভ্যন্তরের স্থানের জন্য একটি করে রাখতে পারেন।  হিউমাস সমৃদ্ধ মাটিতে ফ্লেমিংগো ফুল রোপণ করুন। উজ্জ্বল, অপ্রত্যক্ষ সূর্যের আলো আসবে এমন জায়গায় কোনও পাত্র বা টবে  রাখুন।

ড্রাগন প্ল্যান্ট

আকর্ষণীয় অবয়বের কারণে ড্রাগন গাছগুলির মধ্যে একটি যা অফিস স্পেস এবং বাড়িতে বেশ জনপ্রিয়। এছাড়া  বায়ু বিশুদ্ধকারী হিসেবে ড্রাগন উদ্ভিদটি বহুল প্রচলিত। ড্রাগন উদ্ভিদটি  আপনার বাসায়  ফার্নিচার বার্নিশের মতো বার্নিশের মাধ্যমে বাসার ভেতরের  বাতাসে ছড়িয়ে পড়া জাইলিন, ট্রাইক্লোরিথিলিন এবং ফর্মালডিহাইড অপসারণে অনেক প্রয়োজনীয় ভুমিকা রাখে। এর ঘরোয়া বায়ু বিশুদ্ধকারী  ক্ষমতা অন্যান্য উদ্ভিদের তুলনায় আশ্চর্যজনকভাবে বেশি। যে কক্ষে কাজ করেন অথবা , ঘুমানোর কক্ষে এটিকে রাখতে পারেন। 

পরামর্শ ও যত্ন

আপনি এই গাছগুলির বেশ কয়েকটিকে একই সাথে লাগাতে পারেন।  ড্রাগন প্ল্যান্ট উজ্জ্বল পরোক্ষ আলো পছন্দ করে, যদিও তারা মাঝারি থেকে নিম্ন পরিসরের আলোর সাথে সামঞ্জস্য করার ক্ষমতা আছে। এগুলি তাদের কঠোর সরাসরি সূর্যের আলো থেকে দূরে রাখুন, কারণ এটির খুব বেশি পরিমাণে তাদের পাতা ঝলসে যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *