পুদিনা পাতা আর হুইল চেয়ার 

জার্মানির ডুসেলডর্ফ থেকে গিয়েছিলাম ১১ দিনের জন্য ক্যানারি আইল্যান্ডে।  প্রমোদতরী “Mein Schiff 4”  নোঙ্গর করবে আটলান্টিক মহাসাগরের ৭টি দ্বীপে ।

জার্মানিতে এখন বেশ ঠান্ডা। আমার  বাগানে একটি টবে পুদিনা পাতার গাছ আছে।  চিন্তা করলাম ওগুলো কি ঘরে রাখবো না বাগানেই থাকবে? শুনেছি পুদিনা পাতা শুষ্কতা একদম পছন্দ করে না। ঘরে রাখলে  তো ১১ দিনে  নিশ্চয়ই পিপাসায় মরে যাবে। তবে কি বাইরে রাখবো? বরফ যদি পড়ে?

যাইহোক পুদিনা গাছটিকে আল্লাহর উপর ছেড়ে দিয়ে উড়োজাহাজে উড়লাম জাহাজের আশায়।  ডুসেলডর্ফ থেকে গ্রান্ড ক্যানারিয়া। ৪ ঘণ্টার জার্নি। দেখতে দেখতে কেটে গেলো।  গ্রান্ড ক্যানারিয়ার তাপমাত্রা ২২ ডিগ্রী, আমাদের জার্মানি সে তুলনায় হিমাগার, ২ ডিগ্রী। খুব আরাম বোধ করলাম। প্রমোদতরীতে এসে অবাক হয়ে গেলাম।

এটা কি জাহাজ না টাইটানিক?

পনের তলা, ১১ টি রেস্তোরাঁ, স্টেডিয়াম, সিনেমা হল, সুইমিং পুল, দোকান পাট এমনকি হেয়ারড্রেসারও আছে। অবশ্য আমার হেয়ারড্রেসারের খুব দরকার নেই।  কেবিনের সাথে ব্যালকনি। পায়ের নিচে আটলান্টিক মহাসাগর নাচছে।

রেস্তোরাঁতে ভারতীয়, চাইনিজ, জাপানিজ, জার্মান…. সব রকমের খাবারই পাওয়া যায় এবং সবই ফ্রি।  তাই কেউ যদি রাক্ষসের মতো খায়, কারো কিছু বলবার নেই । যাক, উদরপূর্তি করে লাউঞ্জে ঢুকলাম। কোনো এক নামকরা ব্যান্ড  সুন্দর পারফরমেন্স করছে,  বারে। তরুণ-তরুণী, যুবক -যুবতী, বৃদ্ধ -বৃদ্ধা সবাই নাচছে।

হঠাৎ দেখলাম, আমার পাশে ৯০ বছরের এক ভদ্রমহিলা বসে আছেন হুইল চেয়ারে আর স্বামীকে বলছেন, “আমাকে একটু নিয়ে যাবে স্টেজে, আমি নাচবো”।  স্বামী সানন্দে রাজি হলেন।  সে এক অভূতপূর্ব দৃশ্য। পঞ্চাশ বছর আগেকার  “The Rolling Stones“ এর সেই বিখ্যাত গান  “I can’t get no satisfaction”  এর সাথে গলা মিলিয়ে তিনি গাইছেন আর স্বামী হুইল চেয়ারটি ঘোরাচ্ছেন।

পাঠক, একবার চিন্তা করুন, আপনার বয়স নব্বই, আপনি হুইল চেয়ারে বসে আছেন, আর আপনার সামনে তরুণ ছেলে মেয়েরা গান গাইছে আর নাচছে, আপনি কি সাহস পেতেন নাচতে? এটাই হলো সুখী হওয়ার রহস্য।  জীবনকে প্রতি মুহূর্ত উপভোগ করুন। বয়স একটি সংখ্যামাত্র।

আরও পড়ুনঃ পুদিনার সাতকাহন

এগারোদিন পর জার্মানিতে ফিরে এলাম।  প্রচণ্ড  ঠান্ডা।  দরজা খুলে দৌড়ে গেলাম বাগানের দিকে।এতো ঠান্ডা কাবু করতে পারেনি পুদিনার গুচ্ছকে। এখনো সবুজ পাতা, এখনো যৌবনে ভরপুর।

বাঁচার ইচ্ছে থাকলে, জীবনকে উপভোগ করতে চাইলে শুধু ইচ্ছেটুকুই দরকার, সে হোক নব্বই বছরের বৃদ্ধা কিম্বা ছোট্ট পুদিনা গাছ!

Tarique Huq
www.tariquehuq.com
Author | Motivator | Ex-Pilot

Subscribe our newsletter
[mc4wp_form id=”713″]