রাজধানীতে চলছে জাতীয় ফল প্রদর্শনী ২০১৯ – ফল চিনুন(ছবিসহ)

পরিকল্পিত ফল চাষ, যোগাবে পুষ্টি সম্মত খাবার’– এই প্রতিপাদ্যে রাজধানীর খামারবাড়ির আ. ক. ম. গিয়াস উদ্দিন মিলকী অডিটরিয়াম চত্বরে শুরু হয়েছে ‘ফলদ বৃক্ষ রোপন পক্ষ এবং জাতীয় ফল প্রদর্শনী-২০১৯’। এবারের মেলাটি উদ্বোধন করেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মন্ত্রী রপ্তানীমুখী ফল চাষের জন্যে সকলকে তাগিদ দেন

বিভিন্ন জাতের ফল

বিভিন্ন জাতের ফল

ফলের স্টল

ফলের স্টল

ফল দিয়ে বানানো মিক্সড ফল ট্রি

ফল দিয়ে বানানো মিক্সড ফল ট্রি 

বিভিন্ন জাতের ফল

বিভিন্ন জাতের ফল

এবারের মেলায় প্রায় শতাধিক বিভিন্ন জাতের দেশী, বিদেশী ও সম্ভাবনাময় ফলের প্রদর্শনী করা হয়। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনের অধীনের স্টলসমূহ বিভিন্ন রকম ফলের প্রদর্শিত হয়। এছাড়াও ৭৫ এর অধিক জাতের আম প্রদর্শিত হয় অন্য একটি স্টলে যেখানে ২.৫ থেকে ৩ কেজির বালিশা আমও ছিল। একটি স্টলে ফল দিয়ে তৈরি নানারকম খাবার যেমন জুস, জ্যাম, জেলি, আচার, কাস্টার্ড ইত্যাদি প্রদর্শিত হয়েছে। এছাড়াও কাঁঠাল দিয়ে তৈরি নানারকম পদ যেমন কাঁঠালের বিরিয়ানী, কাবাব, কোপ্তা, কাটলেট, সাসলিক, বার্গার, পুডিং ইত্যাদিও ছিল। এছাড়াও টবে বা ড্রামে চাষ উপযোগী বিভিন্ন ফলের গাছ প্রদর্শিত হয়। 

কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের স্টল

কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের স্টল

নার্সারী

নার্সারী

ফল চাষ ও ছাদ কৃষি বিষয়ক বই, লিফলেট বিতরণ করা হয়। সেখান থেকে দর্শনার্থীরা ফল চাষ বিষয়ক পরামর্শ নিতে দেখা যায়।
 
এছাড়াও মৌসুমী ফল ব্যবসায়ীরা ও নার্সারী প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন জাতের ফলের পসরা নিয়ে বসেছিলেন মেলাতে। সেখান থেকে দর্শনার্থীরা ফরমালিনমুক্ত আম, জাম, কাঁঠাল,  লিচু ইত্যাদি কিনেছেন।
 
প্রদর্শনীটি চলবে আগামী ১৮ জুন ২০১৯ পর্যন্ত। সর্বসাধারণের জন্যে প্রদর্শনীটি সারাদিন খোলা থাকবে।

 
জাতীয় ফল প্রদর্শনী ২০১৯
« 1 of 39 »