চেরি টমেটো দিয়ে মজাদার স্বাস্থ্যকর রেসিপি | Greeniculture

চেরি টমেটোর সালাদ

.

উপকরণ

১। চেরি টমেটো

২। বেসিল পাতা

৩। আপেল ভিনেগার – ৩ টেবিল চামচ

৪। অলিভ অয়েল – ৩ টেবিল চামচ

৫। লবণ – প্রয়োজনমতো

৬। গোল মরিচের গুঁড়ো – ২ চা চামচ

.

চেরি টমেটো দিয়ে সালাদ

.

প্রস্তুতি

একটা পাত্রে ভিনেগার, অলিভ অয়েল, লবণ, গোল মরিচের গুঁড়ো মিশিয়ে নিতে হবে। পরে কাটা টমেটো ও কুচানো বেসিল পাতার সাথে মিশ্রণটি মিশিয়ে নিলেই তৈরি চেরি টমেটো সালাদ।

.

.

পাস্তা ও চেরি টমেটোর মজাদার রেসিপি

.

সবারই বিকেলের নাশতা হিসেবে পাস্তা বেশ পছন্দ। আর সুস্বাদু এই খাবারটি যদি চেরি টমেটো দিয়ে রান্না করা হয় তাহলে তো আর কথাই নেই। তাহলে জেনে নেয়া যাক বাসায় বসে খুব সহজে তৈরি করা যায় এই রেসিপিটি।

.

উপকরণ

১। সেদ্ধ পাস্তা – এক কাপ

২। চেরি টমেটো – এক কাপ

৩। অলিভ অয়েল – দুই টেবিল চামচ

৪। শুকনো মরিচের গুঁড়া – দুই চা চামচ

৫। পেঁয়াজ কুচি – দুটি

৬। রসুন কুচি – তিন কোয়া

৭। চিজ কুচি – আধা কাপ

৮। গোলমরিচের গুঁড়া –  সামান্য

৯। লবণ প্রয়োজনমতো

.

চেরি টমেটো দিয়ে পাস্তা

.

প্রস্তুত প্রণালি

প্রথমে একটি প্যানে অলিভ অয়েল দিয়ে পেঁয়াজ কুচি ও রসুন কুচি দিয়ে ভেজে নিন। এখন এর মধ্যে চেরি টমেটোগুলো দিয়ে নাড়তে থাকুন। ৫ থেকে ১০ মিনিট রান্না করুন। এবার এতে সেদ্ধ পাস্তা, শুকনো মরিচের গুঁড়া, গোলমরিচের গুঁড়া ও লবণ দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। সবশেষে চিজ কুচি দিয়ে ৫ মিনিট রান্না করুন। ওপরে সামান্য অলিভ অয়েল ছড়িয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন পাস্তা উইথ চেরি টমেটো।

.

আরও পড়ুনঃ বাগানে সম্ভাবনাময় চেরি টমেটোর চাষপদ্ধতি

.

চেরি টমেটো দিয়ে রুই মাছের তরকারি

মাছে ভাতে মাতোয়ারা মুখরোচক বাঙালি। বাঙালীদের খাবারের মেন্যু মানেই একটা মাছের ব্যঞ্জন থাকা চাই। তাই চেরি টমেটো দিয়ে রুই মাছের তরকারির রেসিপি জেনে নিই।

.

উপকরণ

১। রুই মাছ – ৫ থেকে ৬ পিস

২। রসুন-বাটা – ১/২ চা-চামচ

৩। আদা-বাটা – ১/২ চা-চামচ

৪। জিরা-গুঁড়া – ১/২চা-চামচ

৫। ধনে-গুঁড়া – ১/২চা-চামচ

৬। পেঁয়াজ-কুচি – ১ কাপ

৭। মরিচ-গুঁড়া – ১/২চা-চামচ

৮। হলুদ-গুঁড়া – ১/২ চা-চামচ।

৯। টমেটো কেচাপ/ সস – ১ চা-চামচ

১০। তেজপাতা – ১টি

১১। চেরি টমেটো দুভাগ করে কাটা – ১ কাপ

১২। কাঁচা-মরিচ – ৩/৪টি ফালি করা

১৩। ধনেপাতা কুচি পরিমাণ মতো

১৪। তেল পরিমাণ মতো

১৫। লবণ পরিমাণ মতো

১৬। পানি পরিমাণ মতো

.

চেরি টমেটো দিয়ে মাছের তরকারি

.

প্রস্তুত প্রণালী 

প্যানে তেল গরম করে মাছের টূকরাগুলো ধুয়ে লবণ, মরিচ ও হলুদ মেখে হালকা ভেজে নিন। মাছ ভাজার গরম তেলে তেজপাতা ও পেঁয়াজ-কুচি দিয়ে নেড়ে ভাজুন। পেঁয়াজ বাদামি রং ধারণ করলে চুলার আঁচ কমিয়ে দিন।এবার আদা ও রসুন বাটা দিয়ে পাঁচ মিনিট ভেজে হলুদ ও মরিচ গুঁড়া, টমেটো-সস, জিরা ও ধনে গুঁড়া এবং লবণ দিয়ে কষাতে থাকুন। সব মসলা পাঁচ মিনিটের মতো কষিয়ে পরিমাণ মতো পানি দিয়ে হালকা নেড়ে ঢেকে রান্না হতে দিন। পাঁচ মিনিট পর মাছের ভাজা টুকরাগুলো মসলায় ছেড়ে দিন। আরও পাঁচ মিনিট রান্না হলে ঢাকনা তুলে টমেটো ও কাঁচামরিচ দিয়ে এবার ১০ মিনিট রান্না করুন। ঝোল ঘন হয়ে এলে ধনেপাতা-কুচি ছড়িয়ে দিয়ে নামিয়ে ফেলুন।

.

.

চেরি টমেটো স্যুপ

.

উপকরণ

১। চেরি টমেটো (লাল) – ১২-১৫টি

২। সয়াবিন – ১ চা-চামচ

৩। গোলমরিচের গুঁড়া স্বাদমতো

৪। রসুনবাটা – ১/৪ চা-চামচ

৫। চিকেন স্টক – ১ কিউব (ইচ্ছা)

৬। কর্নফ্লাওয়ার প্রয়োজনমতো

৭। লবণ স্বাদমতো

৮। চিনি আধা – চা-চামচ

৯। ধনেপাতা – ১ চা-চামচ (কুচানো)

.

চেরি টমেটো দিয়ে স্বাস্থ্যকর স্যুপ

.

প্রস্তুত প্রণালী

চুলায় একটি প্যানে পানি দিয়ে ফুটতে দিন। চেরি টমেটোগুলোকে ফুটন্ত পানিতে ছেড়ে চার থেকে পাঁচ মিনিট রাখুন। খেয়াল রাখবেন, চেরি টমেটো যেন ভর্তা না হয়ে যায়, শুধু মাত্র খোসাগুলো উঠে আসবে। পানি থেকে টমেটোগুলো তুলে খোসা ছাড়িয়ে নিন। তারপর ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন। বাসায় ব্লেন্ডার না থাকলে খোসা আর দানা ছাড়ানো টমেটোগুলো আবারও গরম পানিতে দিয়ে ভালো করে সিদ্ধ করে ডাল ঘুটনি দিয়ে ঘুটে যতটা সম্ভব মসৃণ করে ফেলতে হবে। প্যানে তেল দিয়ে রসুনবাটা একটু ভেজে ব্লেন্ড করে রাখা টমেটো দিয়ে একটু কষিয়ে নিন। তারপর প্রয়োজনমতো পানি আর লবণ দিন। চাইলে ঘরে বানানো চিকেন স্টকও ব্যবহার করতে পারেন বা বাইরের কেনা চিকেন স্টকের একটা কিউবও ছেড়ে দিতে পারেন। ফুটে উঠলে গোলমরিচের গুঁড়া দিন। অল্প চিনি দিয়ে স্বাদ ঠিক করে নিন। প্রয়োজনমতো কর্নফ্লাওয়ার গুলে মিশিয়ে দিন। ধনেপাতার কুচি ছড়িয়ে দিয়ে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন। স্যুপে বেশি ঝাল খেতে ইচ্ছে হলে টমেটো কষানোর সময় লালমরিচের গুঁড়া দিয়ে দিতে পারেন। এতে রং আরও সুন্দর হবে। অথবা টমেটো ব্লেন্ড করার সময় কাঁচামরিচ মিশিয়েও ব্লেন্ড করতে পারেন। দাঁতের নিচে ধনেপাতা পড়লে যাদের মেজাজ বিগড়ে যায়, তারা ধনেপাতা টমেটোর সঙ্গে ব্লেন্ড করে দিতে পারেন। তবে এতে স্যুপের রং একটু কালচে হয়ে যেতে পারে। অনেকেই স্যুপে মাখন প্রেফার করেন। সেক্ষেত্রে স্যুপ চুলা থেকে নামানোর পর পরিবেশন পাত্রে ঢেলে উপরে মাখন দিয়ে দিন। চকচকে একটা ভাব আসবে আর দেখতেও সুন্দর লাগবে।

Facebook Comments